রাবি’র অধ্যাপককে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা

Published: 2015-12-15 11:15:08

News Image

 


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এ কে এম শফিউল ইসলাম লিলনকে এলোপাথারী কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে ঘটে পৈশাচিক এই ঘটনা। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এ কে এম শফিউল ইসলাম লিলন মহানগরীর চৌদ্দপায়া এলাকায় নিজের বাড়ী ফেরার পথে অজ্ঞাত পরিচয় একদল সন্ত্রাসী এলোপাথারী কুপিয়ে তাকে জখম করে । মাথায় ও হাতের কব্জিতে গুরুতর জখম অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালের নিবিড়  পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাঁকে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক অধ্যাপক ড. এ কে এম শফিউল ইসলাম লিলনকে মৃত ঘোষনা করেন।

এ ঘটনায় ছাত্র-শিক্ষক দের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। আহত হওয়ার ঘটনা শোনার পরপরই সহকর্মী ও ছাত্ররা ভিড় করেন আইসিইউ এর সামনে।  বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর মিজান উদ্দিন ও উপ-উপাচার্য চৌধুরী সরওয়ার জাহান রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে যান। শফিউল ইসলাম হত্যাকাণ্ডের পরপরই  রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে রোববার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করআর ঘোষণা দেওয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নৃশংস এ হত্যা কাণ্ডের প্রতিবাদে অবরোধ করে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক ।

পুলিশের হত্যার সুনির্দিষ্ট কোন কারন জানাতে পারেনি। রাজশাহী মহানগর পুলিশের ডিসি তানভির হায়দার চৌধুরী জানায়, অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে অনাকাঙ্খিত এ ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে ।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর মিজান উদ্দিন বলেন, নৃ:শংশস ভাবে হত্যা করা হয়েছে অধ্যাপক ড. এ কে এম শফিউল ইসলাম লিলনকে ।


 
 

Leave a Comment

 
  Please Login For Comments. Or Registration(Sign Up)