আইএস চালু করবে ইসলামি দিনার

Published: 2015-12-12 12:40:06

News Image

 


ইসলামিক স্টেট (আইএস) ‘ইসলামি দিনার’ চালু করবে । প্রস্তাবিত এই স্বর্ণমুদ্রাকে ‘দিনার’ এবং রৌপ্যমুদ্রাকে ‘দিরহাম’ হিসেবে বলা হবে। ইসলামের তৃতীয় খলিফা উসমানের (রা.) শাসনামলে যে মুদ্রা প্রচলিত ছিল, নিজেদের নিয়ন্ত্রিত এলাকায় সেই আদলে স্বর্ণ, রৌপ্য ও তাম্র মুদ্রা ছাড়তে যাচ্ছে ইসলামিক স্টেট (আইএস)।

ইরাক ও সিরিয়ার যে বিস্তীর্ণ এলাকা ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিরা দখল করে নিয়েছে সেখানে কেনা-বেচার জন্য এই ধাতব মুদ্রা ব্যবহৃত হবে। আইএসের ‘খলিফা’ আবু বাকার আল বাগদাদী এই ‘ইসলামি দিনার’ প্রচলনের আদেশ দিয়েছেন। আইএসের অনুমোদিত একটি ওয়েবসাইটের বরাত দিয়ে গার্ডিয়ান এ খবর জানায়।

নিজেদের অর্থ ব্যবস্থা চালু করবার বিষয় নিশ্চিত করে সুন্নি দলটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, তারা ৬৩৪ খ্রিষ্টাব্দে খলিফা ওসমানের চালু করা সোনা ও রুপার মুদ্রার ব্যবস্থা তৈরি করবে। মুদ্রাগুলো হবে খাঁটি সোনা, রুপা ও তামার তৈরি।

গার্ডিয়ান–এর প্রতিবেদনে বলা হয়, আবু বাকার আল বাগদাদী বৃহস্পতিবার তাঁর অনুসারীদের বলেছেন, পশ্চিমা বিশ্ব ‘উৎপিড়নমূলক মুদ্রা ব্যবস্থা’র মাধ্যমে মুসলমানদের ‘দাস’ বানিয়ে রেখেছে। এই পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটাতেই নতুন মুদ্রা ব্যবস্থা চালু করা হবে।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম বলেছে, ইতিমধ্যেই আইএস তাদের নতুন মুদ্রা ইরাকের মসুল এলাকার বিভিন্ন মসজিদে বিতরণ করা শুরু করেছে।

দিনার তৈরি করা হচ্ছে ৪ গ্রাম সোনা দিয়ে। দিরহামে থাকছে ৩ গ্রাম রুপা। গোলাকার এই মুদ্রার উভয় পাশে খেলাফতের নাম অঙ্কিত থাকবে।

ইরাক ও সিরিয়ার দখল করা তেলক্ষেত্র থেকে তেল উত্তোলন করে তা কালোবাজারে বেচে আইএস দিনে ১০ লাখ ডলার করে আয় করছে। এই অর্থ দিয়ে তারা চোরাকারবারিদের কাছ থেকে সোনা আর রুপা কিনছে। তা দিয়েই তৈরি হচ্ছে এই সোনা রূপা আর তামার মুদ্রা।


 
 

Leave a Comment

 
  Please Login For Comments. Or Registration(Sign Up)