নিশা দেশাই হোল দুই আনার মন্ত্রীঃ আশরাফ

Published: 2015-12-13 11:00:33

News Image

 


স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া-বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়ালকে দুই আনার মন্ত্রী্ বলে মন্তব্য করেছেন ।

শনিবার দুপুরে খুলনা সার্কিট হাউস ময়দানে মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এ মন্তব্য করেন। নিশা দেশাই তিন দিনের সফরে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশে এসেছেন।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে শুক্রবার মার্কিন মন্ত্রীর ওই বৈঠকের বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফ বলেন,Nমার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দুই আনা মন্ত্রী, চার আনাও না, এক মন্ত্রী আছে নিশা দেশাই। তার সঙ্গে দুই-দুইবার বাংলাদেশের সাবেক  প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে টেলিভিশনে দেখে মনে হলো, ২২/২৩ বছরের মেয়ের সামনে বেগম খালেদা জিয়া হাত পেতে বসে আছেন, বাংলাদেশের ক্ষমতাটা যাতে এই মিস দেশাই বেগম খালেদা জিয়ার হাতে তুলে দেন।

ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনার প্রতি ইঙ্গিত করে সৈয়দ আশরাফ বলেন,কয়দিন আগে খালেদা জিয়া  ছিলেন আরেকজনের দিকে তাকিয়ে। মজীনা তো কত চেষ্টা করল নির্বাচনটা বন্ধ করার জন্য, শেখ হাসিনা যাতে প্রধানমন্ত্রী না হতে পারে তার জন্যও । এমন কোনো প্রচেষ্টা নাই তিনি করেন নাই। আল্লার ওয়াস্তে সবশেষে চাকরির  মেয়াদও শেষ, ক্ষমতাও শেষ। আগামী সপ্তাহে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দেবেন। জীবনে হয়তো আর বাংলাদেশে আসবেন না।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বাংলাদেশ কিন্তু ওই অবস্থায় নাই যে কাজের মেয়ে মর্জিনা বাংলাদেশের ক্ষমতার রদবদল করতে পারে। সৈয়দ আশরাফ বলেন, হঠাৎ করে বিএনপির মনে আশার জাগলো মজীনা দিয়া যখন কোনো কাম হইল না, মোদির কাছে গিয়া যদি কিছু আদায় করতে পারি। চেষ্টা করছে। আমি গত সপ্তায় দিল্লি ছিলাম। ভারতের এমন কোনো মন্ত্রী নাই যাঁর সঙ্গে আমার কথা হয় নাই। মোদি তো আপনার মনমোহন সিংয়ের চাইতে আরও আরও বেশি কট্টর আওয়ামী লীগ পক্ষে।

খালেদা জিয়াকে আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নেওয়ার উপদেশ্হ দিয়ে সৈয়দ আশরাফ বলেন, খালেদা জিয়া এখন কী করবেন? নির্বাচনের আগে আরও আছে চার বছর। একজন রাজনীতিবিদ হিসেবে ওনাকে আমি উপদেশ দিতে পারি। এখন থেকে আপনারা আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হন। নির্বাচনের যে নৌকা, দ্বিতীয়বার যাতে আপনার হাতছাড়া না হয়। এই পৃথিবীর গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রব্যবস্থায় এমন কোনো শক্তি নাই শেখ হাসিনাকে এক দিন আগে ক্ষমতাচ্যুত করতে পারবে।

গণমাধ্যমের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কিছু মিডিয়া আছে। শেখ হাসিনাকে কালকে ক্ষমতা থেকে উঠায়ে দিব, পরশু দিন উঠায়ে দিব। সকালে উঠায়ে দিব, বিকালে উঠায়ে দিব। এক দিনের জন্যও রাখবে না, এমন ভাবসাব। মনে হয় যে, শেখ হাসিনা কচুপাতার পানি। নাড়া দিলেই পড়ে যাবে।


 
 

Leave a Comment

 
  Please Login For Comments. Or Registration(Sign Up)